Welcome,visitor! Register Login

Post an Ad

Advertisement

আসুন জেনে নেই এস এম এস সার্ভিস এর আদ্যোপান্ত – পর্ব – ১

May 8, 2013, by , under Tutorial

sms service

অনেকদিন থেকে আশা করতেছিলাম বাংলাদেশের এসএমএস সার্ভিস নিয়ে লিখি। কারণ বাংলাদেশে এইটার অনেক জনপ্রিয়তা এবং সাথে ব্যাবহার ও বেড়েছে। আপনি খেয়াল করলে দেখবেন বেশির ভাগ কোম্পানিই এসএমএস সার্ভিস ব্যাবহার করেন ।

এসএমএস গুলো ব্যাবহার করার জন্য কোম্পানিগুলো ইউনিক কিছু নাম্বার ব্যাবহার করে। এই নাম্বার গুলোকে বলে এসএমএস সর্টকোড। যেমন ১৬১১৫ বাব ১৬২২৯ বিভিন্ন নাম্বার এর হয়ে থাকে। এই সর্টকোড গুলো নিতে হয় বিটিআরসি (BTRC)  থেকে। এই সর্টকোড গুলো ইউনিক হওয়াতে কারো সাথে কারো মিলে না।

এসএমএস সার্ভিস সাধারণত দুই প্রকারের হয়।

১। এসএমএস পুল পুশ সার্ভিস

২। এসএমএস পুশ সার্ভিস

এসএমএস পুল পুশ সার্ভিস  ঃ 

এসএমএস পুল পুশ সার্ভিস হল যেটা কাস্টমার নিজে সেন্ড করে কোম্পানিকে। সেন্ড করার সময় সাথে কিছু ওয়ার্ড ও সেন্ড করেন। এই ওয়ার্ড গুলকে বলে কী ওয়ার্ড। যেমন ধরেন, techinews24.com একটা ভোটইং সিস্টেম চালু করতে চান যাতে করে ঊনরা বুজতে চান কোন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ তা  বেশি জনপ্রিয়। তো উনারা সবাইকে বললেন যদি পি এস পি কে ভোট দিতে চান তা হলে মোবাইল এর এসএমএস অপশন এ গিয়ে পি (P) লিখুন এবং ১৬১১৫ এ সেন্ড করে দিন। আর যদি এ এস পি ডট নেট হয় তা হলে এ (A) লিখে ১৬১১৫ এ সেন্ড করে দিন। এর যদি জাবা হয় তা হলে জে (J) লিখে ১৬১১৫ এ সেন্ড করে দিন । ধরি ১৬১১৫ শর্ট কোড টেকটুইনস এর। এই ভাবে করেই সবার ভোট এসএমএস পুল পুশ সার্ভিস এর মাধ্যমে সংগ্রহ করে ফেলা যাই।

এসএমএস পুশ  বা বাল্ক এসএমএস সার্ভিস  ঃ

এসএমএস পুশ সার্ভিস হল যদি টেকটুইনস নিজে আমাদের সবাইকে এসএমএস করে ইনফরম করেন যে, উনারা একটা ভোটইং সিস্টেম চালু করতে যাচ্ছেন। আমরা যেন ভোট এ অংশ গ্রহন করি। এইযে উনারা আমাদের কে ইনফরম করলেন কোন একটা ইনফর্মেশন এইটা হল এস এম এস পুশ সার্ভিস। এখন তো আমরা প্রায় এই রকম এস এম এস পেয়েই থাকি বিভিন্ন কোম্পানি থেকে বিভিন্ন পন্নের বিজ্ঞাপন হিসাবে।

বাংলাদেশ এর প্রায় সব ব্যাংক ই এস এম এস সার্ভিস দিয়ে থাকে। ঊনরা ও এস এম এস পুল পুশ এবং এস এম এস পুশ সার্ভিস। দুইটাই দিয়ে থাকেন। আমি যে ব্যাংক এর সাথে হিসাব রাখি উনাদের পুল সার্ভিসতা এই রকম। যেমন, এ (A) লিখে এস এম এস করলে অ্যাকাউন্ট এর ব্যাল্যান্স দেখাই টি (T) লিখে এস এম এস করলে বিভিন্ন খরচ এর হিসাব দেখাই। আবার পুশ সার্ভিস এ ইনফরম করে যদি কোন টাকা উঠাই বা ক্রেডিট কার্ড দিয়ে খরচ করি। এই সার্ভিসকে উনারা বলেন এস এম এস ব্যাংকিং সার্ভিস। ব্যাংকটার নাম নাই বললাম কারণ আপনারা হয়তো এর মধ্যে বুজে ফেলছেন নামটা।

আজকের পর্ব এই টুকু। পর্ব ২ ইনশা আল্লাহ এস এম এস সার্ভিস কি ভাবে কাজ করে টা নিয়ে লেখা দিবো যদি আপনারা পর্ব ১ পছন্দ করে থাকেন।

ভালো থাকবেন সবাই।

 

1139 total views, 5 today

  

Sponsored Links

Leave a Reply

Advertisement